Trending

ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম

Facebook Details

ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম : ফেসবুক হচ্ছে বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি  সামাজিক যোগাযোগ

মাধ্যম। যেখানে  প্রতিদিন ১.৯৩ বিলিয়ন মানুষ তাদের মনের ভাব প্রকাশ করে থাকে। আমরা প্রত্যেকদিন আমাদের

দৈনন্দিন কার্যাবলী, আমাদের ভ্রমণ, আমাদের ছবি পোস্ট করে থাকি।  একে অন্যের সাথে আমাদের মনের ভাব আদান

প্রদান করে থাকি।   বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহার করে না এমন মানুষের সংখ্যা নেহায়েত কম। তাই আসুন আমরা ফেসবুকের

খুটি নাটি  বিস্তারিত সকল কিছু জেনে নেই।

 ইতিহাস

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা জনাব মার্ক জাকারবার্গ ২৮ শে অক্টোবর ২০০৩ সালে তৈরি  করেন ’’ফেসম্যাস’’ । পরবর্তীতে

ফেসম্যাসের সফলতার কারণে তিনি ২০০৪ সালের জানুয়ারিতে নতুন কোড লেখা শুরু করে ২০০৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে

তিনি  তিন বন্ধুর সহযোগিতায় facebook.com নামে যাত্রা শুরু করেন । পরবর্তীতে ২০০৪ বছরের ডিসেম্বরে ব্যবহারকারীর

সংখ্যা দাঁড়ায় ১০ লাখে। ২০০৫ সালে এই  সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে হয় ৫৫ লাখ।  ২০০৬ সালে এই সংখ্যা গিয়ে দাড়ায় ১কোটি ২০

লাখ। যা জ্যামিতি হাড়ে বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে ১.৯৩ বিলিয়ন ছাড়িয়েছে । যা সমনের দিনগুলোতে এই সংখ্যা আরো বৃদ্ধি

পাবে।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা

ফেসবুক চালায়, কিন্তু ফেসবুকের প্রতিষ্ঠান এর  প্রতিষ্ঠাতা তার নাম জানেনা এমন লোক পাওয়া দুষ্কর। তবে ফেসবুকের

প্রধান প্রতিষ্ঠাতা ছাড়াও আরও তিনজনের ভূমিকা আছে। যাদের নাম এখানে উল্লেখ সহ বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ সহ তারা তিনজন মিলে  ২০০৪ সালে ২৮ ফেব্রুয়ারী  facebook.com এর যাত্রা শুরু

করেন। তার তিন বন্ধু হলো এডুয়ার্ডো স্যাভেরিন। ডাস্টিন মস্কোভিত্স। ক্রিসহিউজের যৌথ প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠা লাভ করে

ফেসবুব.কম এর । এর পর থেকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। সাময়িক ভাবে কিছু সমস্যা হলেও পরবর্তীতে দিন দিন

এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম  ফেসবুকের আয়

অনেকেই চিন্তা করেন ফেসবুক পরিচালনা করে ফেসবুক প্রতিষ্ঠান কি লাভ? কীভাবে তারা আয় করেন? তাদের এই  জানার

বিষয়টি সহজ করার জন্য বলছি। ফেসবুক মূলত তাদের প্রধান আয়ের করে থাকেন বিভিন্ন কম্পানির  বিজ্ঞাপন থেকে।

তাছাড়াও কিছু সেবা বিক্রি করে তারা আয় করে থাকে। কিন্তু তার মধ্যে বিজ্ঞাপন রয়েছে প্রধান । তবে আরেকটি

উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে ফেসবুকের বিজ্ঞাপনের খরচ খুবই কম। এখানে বিজ্ঞাপনের খরচ কম হয় বলে অনেক বিজ্ঞাপন

প্রদানকারী সংস্থার কাছে ফেসবুক খুবই জনপ্রিয়। এতে করে  ফেসবুক তার বেশিরভাগই নিয়ে আসে তার বিজ্ঞাপনের

মাধ্যমে।

ফেসবুকের বর্তমান অবস্থা- Present Status of Facebook

বর্তমানে ফেসবুকের অবস্থান খুবই ভালো। যতগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আছে তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে

ফেসবুক। ফেসবুক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ তার মনের ভাব আদান প্রদান করে যাচ্ছে। আর এই সংখ্যা দিন দিন

বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে যারা যুবক-যুবতী তারা ফেসবুকে নিজের মনের ভাব প্রকাশের একটি মাধ্যম হিসেবে নিয়েছেন ।

তাই বর্তমানে এই ব্যবহারকারীর সংখ্যা জ্যামিতিক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে 1১.৯৩  মিলিয়ন পিপল সক্রিয়ভাবে ফেসবুক

পরিচালনা করে। এই সংখ্যা সামনে আরো বৃদ্ধি পাবে।

ফেসবুক লগইন

জোয়ান কিংবা বৃদ্ধ। তরুণ-তরুণী, কিশোর-কিশোরী সবারই বর্তমানে ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট আছে। আবার কেউ কেউ

ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খোলা কে অনেক কষ্টের মনে করেন। তাদের সহজ করার জন্যই আমি ফেসবুক একাউন্ট খোলার

সহজ  ধাপের মধ্যমে  আপনাদের সামনে উপস্থাপন করবো । এই ধাপ গুলো অনুসরন করেই আপনি খুবই সহজে আপনার

একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। তো চলুন ধাপগুলো পর্যাক্রমে আলোচনা করি।

ধাপ -০১:

আপনি যদি ফেসবুকে একটি একাউন্ট খুলতে চান । সেই ক্ষেত্রে আপনার ইন্টারনেট সংযুক্ত একটি মোবাইল লাগবে অথবা

একটি ডেস্কটপ কম্পিউটার লাগবে। আপনি ডেস্কটপ এবং ল্যাপটপ অথবা ইন্টারনেট কানেকশন সহ মোবাইল হলে

আপনি সহজেই ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট করতে পারবেন।

ধাপ-০২:

আপনার মোবাইলের অপশন এ গিয়ে আপনার  facebook.com এ প্রবেশ করবেন। সেখানে গিয়ে আপনি দুইটা অপশন

পাবেন একটা হচ্ছে লগইন আরেকটা সাইন আপ আপনি সাইন আপ  অপশনে গিয়ে ক্লিক করবেন।  সেখানে ক্লিক করার

পর আপনার প্রথম নাম লাস্ট নেম জন্মতারিখ সহ কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য চাইলে সব তথ্য প্রদান করবেন । তার পরে আপনি

সাবমিট বাটনে ক্লিক করবেন । দেখবেন আপনার ফেসবুক একাউন্টটি হয়ে গেছে। 

উপরের ছক মোতাবেক তথ্য দিয়ে আপনি এবার সাইন আপ ক্লিক করুন । দেখবেন আপনার ফেসবুকে একটি একাউন্ট

তৈরী হয়ে গেছে।

ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম ও ফেসবুক চালু

ফেসবুকে তথ্য আদান-প্রদান করা খুবই সহজ । এখানে আপনি ক্রিয়েট পোস্টে গিয়ে আপনি যেকোন ধরনের পোস্ট ,ছবি,

ভিডিও আপলোড এবং ডাউনলোড করতে পারবেন এবং শেয়ার করতে পারবেন যেকোন তথ্য সবার সাথে। এখানে

আপনার বেশ কিছু অপশন আছে, আপনি ইচ্ছে করলে সিলেক্ট করে দিয়ে দিতে পারবেন । যেমন আপনি যদি চান  শুধু

বন্ধু বান্ধবদের সাথে শেয়ার  করবেন তবে তা শুধু আপনার বন্ধু বান্ধবের মধ্যে শেয়ার হবে। আর যদি সবার সাথে শেয়ার

করতে চান সে অপশনটিও এখানে চালু আছে । তাই ইচ্ছে করলে আপনি আপনার ইচ্ছামত আপনার তথ্য শেয়ার করতে

পারবেন। সেখানে আপনাকে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। আপনার ইচ্ছের উপরে নির্ভর করবে আপনি কার সাথে তথ্য

আদান-প্রদান করতে চাচ্ছেন। এছাড়াও ফেসবুক নতুন ফিচার নিয়ে আসছে ফেসবুক পেইজ। এখানে আপনি পেইজ খুলে

আপনার ব্যবসা অথবা আপনার গ্রুপ পরিচালনা করতে পারবেন। যেখান থেকে আপনি সহজেই নির্দিষ্ট একটি গ্রুপকে

আপনার দিকনির্দেশনা দিতে পারবেন এবং আপনার পণ্য কেনা বেচার জন্য মার্কেট হিসেবে বিবেচনা করতে পারবেন।

ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম শেষ কথা

ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম লেখাটি পড়লে জানতে পারবেন ফেসবুক বর্তমান সময়ের জন্য একটি জনপ্রিয় নাম।

প্রতিদিন ফেসবুকে বিচরণ করে না, এমন  ইন্টারনেট ব্যবহারকারী মানুষ পাওয়া কষ্টকর। তাই ফেসবুকের জনপ্রিয়তা দিন

দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে । এর বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধার কারণে আমরা সহজেই একজন থেকে আরেকজনে অনেক দূরে থাকলেও

ফেসবুকের মাধ্যমে আমরা ভাবতে পারি অনেক কাছে আছি। তাই ফেসবুক সম্পর্কে আপনার আরো কোন কিছু জানার

থাকলে আপনার মূল্যবান মতামত আমাদের কমেন্ট বক্সে লিখুন। পরবর্তী লেখা আমরা উত্তর দিব ।অনেক কষ্ট করে

আমার লেখাটা পড়ার জন্য আপনাদের অনেক অনেক ধন্যবাদ।

একই জাতীয় লেখা:

১. গুগোল সম্পর্কে বিস্তারিত।

২. ইউটিউব বিস্তারিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.