Skip to content

ইতালিতে যেতে কত টাকা লাগে এবং শ্রমিক নিয়োগ ও বেতন ২০২৩

ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত

সবারই বিদেশ যাওয়ার মূল উদ্দেশ্য থাকে আর্থিকভাবে সচ্ছলতা হওয়া। আজকের ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত ? আলোচনাটি

তাদের জন্য অনেক কার্যকরী হতে যাচ্ছে ,বিশেষ করে যারা ইতালিতে যেতে চাচ্ছেন। কারণ আপনি যখন ইতালিতে যাবেন তখন

আপনার বেতন কত হবে? একজন প্রবাসী শ্রমিকদের বেতন কত দেয়? সেইসব বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। এর সাথে

আরও আলোচনা করা হবে ইতালিতে যেতে আপনার কত টাকা লাগবে? কত টাকা হলে ইতালিতে যেতে পারবেন । কারন প্রতিটা

দেশের নির্দিষ্ট কিছু নিয়মকানুন আছে। সে দেশের নিয়মকানুনগুলো অনুসরণ করেই আমাদের সেই দেশে যেতে হবে।ইতালিয়

সরকার শ্রমিক বান্ধব এবং মানবিক দিক থেকে অনেক বেশি সচেতন । তারা কখনোই চায় না বিদেশ থেকে কাজের লোক এনে

তাদেরকে ঠকানো। তাই তারা সব সময় একটি বেতন কাঠামো নির্ধারণ করে থাকে। সেখানে তার চেয়ে কম বেতন কোন কর্মীকে

প্রদান করা যায় না। তাই আসুন এই বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করি। যাতে করে আপনাদের মনে এই ধরনের প্রশ্ন আর

না জাগে। একই সাথে আপনি যেন সে দেশটিতে যেতে পারেন এর জন্য নিচের ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত ? লেখাটা প্রথম

থেকে শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন ধৈর্য সহকারে।

ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত

"<yoastmark

ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত?- ইউরোপীয় ইউনিয়নের যতগুলো দেশ আছে বেশিরভাগ দেশ হচ্ছে মানবতার ফেরিওয়ালা।

তারা কখনোই কাউকে ঠকানোর চিন্তা করে না। সে দেশের সরকারগুলো বিদেশী শ্রমিকদের প্রতি অনেক বেশি মানবিক। বিদেশী

শ্রমিক যেন কোনোভাবেই তাদের দেশে কোন ধরনের কষ্টের শিকার না হয় সেই বিষয়ে অনেক বেশি সচেতন। আর তাই তারা

সবদিক থেকে সচেতন হয়ে কর্মীদের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদান করে থাকে। তাই তাদের নির্দিষ্ট একটি বেতন কাঠামো নির্ধারণ করা

থাকে বা একজন শ্রমিক ইতালিতে প্রবেশ করে তবে তার  ‍নূন্যতম  বেতন কত হবে এই বিষয়টি নির্ধারণ করা থাকে। তবে তার

উপরের বেতন নির্ধারণ করা হয়না কারণ সেক্ষেত্রে আপনার দক্ষতা, এবং কাজের অভিজ্ঞতার উপর নির্ভর করবে আপনার বেতন

কত হবে। তাই একজন শ্রমিক যদি ইতালিতে প্রবেশ করে তার ন্যূনতম বেতন প্রতি ঘন্টা ৮ ইউরো।

ইতালিতে শ্রমিক বা কর্মী নিয়োগ ২০২৩

ইতালিতে শ্রমিক বা কর্মী নিয়োগ ২০২৩- ইতালিয় স্থানীয় সরকারের ঘোষণা মোতাবেক ২০২৩ সাল হতে যাচ্ছে ইতালির

স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বৈদেশিক কর্মী নিয়োগের বছর। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৩ সালে স্থানীয় সরকার ৮২ হাজার ৭০৫জন

বৈদেশিক শ্রমিক নিয়োগ করবে। আর এই লোকগুলো তারা বিভিন্ন ধাপে, এবং বিভিন্ন কোটায় যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে তাদের দেশে

তারা নিয়োগ করবে। তাই আপনি যদি ইতালিতে যাওয়ার জন্য মনস্থির করে থাকেন, তবে ২০২৩ সাল হতে পারে আপনার জন্য

সৌভাগ্যের বছর। সবসময় আমাদের সাথে যোগাযোগ রাখবেন যেন আপনি আপডেট তথ্য পেতে পারেন। কারণ আমরা আমাদের

সাইটে ইতালি নিয়োগের নতুন খবর শেয়ার করে থাকি। তাই সবসময় আমাদের সাথে থাকুন। আশা করি সব সময় নতুন নতুন তথ্য

ইতালি সম্পর্কে পেয়ে যাবেন। এছাড়াও আমাদের ইতালির বিষয়ে আরো অনেক তথ্য আছে । আপনি ইচ্ছে করলে লেখাগুলো

পড়তে পারেন, এবং আমাদের কাছে কমেন্টস করুন আমরা তার উত্তর দিয়ে আপনার প্রশ্নের উত্তর জানিয়ে দিব।

ইতালিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের শ্রমিকদের  বেতন কত?

ইতালিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের শ্রমিকদের  বেতন কত?- যেহেতু ইতালি সরকার মানবিক দিক দিয়ে অনেক উন্নত। তাই তারা

সকল দেশের শ্রমিকদের জন্যই সমান হারে সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে, এবং তাদের যোগ্যতা ও দক্ষতার উপরেও অনেক সময় তার

বেতন নির্ভর করে। তবে ন্যূনতম বেতন নির্ধারণ করা আছে । সেই ক্ষেত্রে বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য এর ব্যতিক্রম নয়। আপনি

যদি বাংলাদেশ থেকে সে দেশে গমন করেন, বা অন্য কোন দেশ থেকে গিয়ে থাকেন তবে সকল ক্ষেত্রেই সবাই সমান সুযোগ সুবিধা

পেয়ে থাকবেন। সে ক্ষেত্রে কোন ধরনের অন্যায় কার্যকলাপ হওয়ার সম্ভাবনা নেই, আর সেক্ষেত্রে আপনার ন্যূনতম বেতন হবে প্রতি

ঘন্টায় ৮ ইউরো। আর আপনার সর্বোচ্চ বেতনের কোন সীমানা এখানে দেয়া সম্ভব নয় কারণ তা নির্ভর করবে শুধু আপনার

যোগ্যতার উপর।

ইতালি যেতে কত টাকা লাগে ২০২৩

ইতালি যেতে কত টাকা লাগে ২০২৩? – অনেকেই ইতালিতে যেতে চান কিন্তু টাকার অভাবে, বা অনেক বেশি টাকা লাগে বিদায়

তারা যেতে পারে না । কারণ আমরা অনেকেই জানি না ইতালি যেতে কত টাকা লাগবে? আর সেই ক্ষেত্রে অনেকেই দেখা যায় দালাল

চক্রের খপ্পরে পড়ে অনেক টাকা গচ্চা দিয়ে থাকে, বা অনেক বেশি টাকা তাদের কাছ থেকে নিয়ে থাকে। কিন্তু আপনি যদি ইতালি

যেতে কত টাকা লাগে সে বিষয়টি জানেন তাহলে খুব সহজেই তাদের প্রতারণার হাত থেকে বাঁচতে পারবেন। আপনি ইতালিতে কোন

ভিসায় যেতে চাচ্ছেন সেই বিষয়ের উপর নির্ভর করবে আপনার কত টাকা খরচ হবে? তবে আমি আপনাদেরকে একটি ধারণা দিতে

পারি আপনি যদি এই তিন ধরনের ভিসায় বর্তমানে ইতালিতে লোক নেয়া হচ্ছে আর তা হলো টুরিস্ট ভিসা যার খরচ হলো-২ থেকে

২.৫ লক্ষ। স্টুডেন্ট ভিসা-৮ থেকে ১০ লক্ষ কারণ এখানে টিউশন ফি ও থাকা খাওয়া সহ অনেক সময় খরচ হিসাব করা হয়। আর

আরেকটি হচ্ছে সিজনাল ও স্পন্সর ভিসা যেখানে ১.৫ লাখ ও ৪ লাখ টাকা খরচ হয়ে থাকে। তবে যাদের নিকট আত্নীয় আছে তাদের

এই পরিমাণে খরচ হবে। কিন্তু যদি কেউ দালাল বা এজেন্সির মাধ্যমে যেতে চান তবে সেই ক্ষেত্রে খরচ অনেক বেশি পড়বে। কারণ

সেখানে তাদের ভিসা সংগ্রহ করতে অনেক বেশি টাকা খরচ হয়ে থাকে। তাই যদি আপনার কোন পরিচিত বা আত্নীয় না থাকে তবে

ভালো এবং বিশ্বাসযোগ্য  এজেন্সির মাধ্যমে যেতে হবে যাতে করে প্রতারণার স্বীকার না হন। আর সেই ক্ষেত্রে টাকার পরিমাণ আগে

থেকেই মিটিয়ে নিবেন।

ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত  এর কথোন

আশা রাখছি উপরোক্ত ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত ? লেখাটি আপনাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ, এবং তথ্যবহুল হয়েছে ।

আর তাই এই লেখাটি আপনাদের অনেক কাজে আসবে। যারা সামনের দিনগুলোতে ইতালি যেতে চাচ্ছেন, বা ইতালিতে বর্তমান

আছেন বিষেশ করে তাদের আত্মীয়-স্বজন ইতালিতে নিতে চাচ্ছেন তাদের জন্য এই লেখাটির অনেক উপকারে আসবে। আর তাই

আপনার যেরকম উপকার হয়েছে অন্যরাও যেন লেখা থেকে উপকৃত হতে পারে সেজন্য লেখাটি সবার মাঝে শেয়ার করে ছড়িয়ে

দিন । এই লেখাটি ছাড়াও ইতালি সম্পর্কে আমাদের আরও বিস্তারিত অনেকগুলো লেখা আছে, যে লেখাগুলোর লিংক আমাদের নিচে

দেওয়া আছে। আপনি ইচ্ছে করলে সেই লেখাগুলোও পড়তে পারেন, তাহলে আশা রাখছি ইতালি যাওয়ার বিষয়ে আপনারা কোন

ধরনের প্রশ্ন থাকবে না । ধন্যবাদ প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ইতালিতে শ্রমিকের বেতন কত ? লিখাটি পড়ার জন্য, ভাল থাকুন সুস্থ

থাকুন।

একই জাতীয় আরো লেখা :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Share Buttons and Icons powered by Ultimatelysocial