Skip to content

রসুনের উপকারিতা রসুন খাওয়ার নিয়ম ও কখন রসুন খেতে হয়

রসুনের উপকারিতা: রসুন  আমরা সাধারণত খাবার রান্না করার সময় মসলা হিসেবে এর ব্যবহার করে থাকি। এই রসুনকে অনেক জীনিস রান্না করার সময় মশলা হিসেবে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এই রসুন খেলে আমাদের অনেক বড় উপকারিতা রয়েছে, সে বিষয়ে আজ আমি আপনাদেরকে বিস্তারিত বলবো।

যা শুনলে আপনি অবাক হয়ে যাবেন, এবং আজ থেকেই রসুন খাওয়ার জন্য আগ্রহী হবেন। রসুন  কিভাবে খেলে উপকার হয় সেই বিষয়টা বিস্তারিত বলবো এবং কিভাবে রসুন খেতে হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব রসুনের উপকারিতা এই লেখাটিতে।

রসুন কি? কাকে রসুন বলে?

এটা হচ্ছে পিয়াজের মত এক ধরনের ঝাঁঝালো সবজি। যা আমরা রান্নার সময় মসলা ও অনেক সময় ভেষজ ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করে থাকি। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশেই এর উৎপাদন হয়। তবে এটা পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি উৎপাদন হয় চীনে ।

আর বাংলাদেশের কমবেশি সব জেলাতেই এর  উৎপাদন হয়ে থাকে কিন্তু  বাংলাদেশের রসুন উৎপাদনের ৭০ ভাগ  উৎপাদন হয় নাটোর জেলায়।

রসুনের কিছু অজানা তথ্য

রসুন নিয়ে কিছু মজার তথ্য আছে যা আজ এখানে আপনাদের তা জানাবো।  যে তথ্যগুলো জানলে আপনি অবাক হয়ে যাবেন। সেগুলো নিচে উপস্থাপন করা হল।

  • ইউরোপে একসময় হোয়াইট ম্যাজিক করতে মানুষ এই রসুন ব্যবহার করত।
  • অনেকের বিশ্বাস বা তাদের ধারণার বাম্পায়ার তারাতে এটা খুবই কার্যকর আর তাই তারা রসুন বাম্পায়ার তারানোর কাজে ব্যবহার করত।
  • আশ্চর্যজনক হলো পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি রসুন ব্যবহার হয় চীনে  আর তাই এই দেশে ৬৬ ভাগ রসুন উৎপাদন হয়ে থাকে।
  • পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে মিষ্টি তৈরিতেও এর ব্যবহার করা হয়।
  • প্রথম বিশ্বযুদ্ধ যখন অনেক সৈন্য আহত হয় তখন সালফার সংকট হলে এর বিপরিতে রসুন ব্যবহার করা হয়।
  •  প্রতি বছর ১৯ এপ্রিল বিশ্ব রসুন দিবস পালিত হয়।

রসুন খাওয়ার উপকারিতা/রসুন কেন খাব?

একে কে বলা হয় ভেষজ উপাদান। এই উপাদানটিতে রয়েছে অনেকগুলো উপকারিতা । যে উপকারিতা গুলো মানুষের জন্য অপরিহার্য । তাই আমাদের খাবার তালিকায় এটা রাখা একান্ত জরুরি। আজ আপনাদের দেখাবো রসুন খেলে কি কি উপকার হয় যা নিম্নে উপস্থাপন করা হল।

  • রসুনকে আমরা অনেক সময়  কৃমিনাশক হিসেবে ব্যবহার করি।
  • যাদের শ্বাসকষ্ট আছে তাদের জন্য রসুন খুবই উপকারী কারণ এটা মানুষের শ্বাসকষ্ট কমায়।
  • রসুন মানুষের হজম শক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।
  • যাদের  প্রসাবের বেগ আস্তে তারা যদি রসুন খায় তবে এটা প্রসাবের বেগ বাড়ায়।
  • খুব  সহজেই এটা শ্বাসনালীর মিউকাস বের করে দেয়।
  • অনেকের এজমা আছে, আর যাদের এই রোগ আছে তারা যদি এটা নিয়ম করে খায় তাহলে এজমা রোগের উপশম দেয়।
  • হাইপার টেনশন কমায়।
  • অনেকের অল্প বয়সেই  চুল পেকে যায় তাই যদি কেউ রসুন খায় তাহলে চুল এটা চুল পাকানো কমায়।
  • শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায় ।
  • ফুসফুসের সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।
  • যাদের  হাড়ের বিভিন্ন রোগ আছে তারা যদি এটা খায় তাহলে এটা হাড়ের রোগ সারানোর জন্য কাজ করে থাকে।

 রসুনের উপকারিতা

এক সময় মানুষ প্রাকৃতিক উপায়ে তাদের দেহের বিভিন্ন রোগ নিরাময়ের জন্য বিভিন্ন উপাদান ব্যবহার করত । এর মধ্যে রসুন ছিল অন্যতম ভেষজ উপাদান। এটা প্রাণীকূলের  বিভিন্ন রোগের জন্য কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে । আর এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে জীবনি শক্তি বাড়ানোর ক্ষেত্রে।

যাদের এই জাতীয় সমস্যা আছে তাদের জন্য রসুন এক মহা ওষুধ। জীবনি শক্তি বাড়ানো বা এ জাতীয় সমস্যা নিরাময়ের পেতে যেভাবে এটা  কাজ করে তা নিম্নে বিস্তারিত আলোচনা করবো । যা শুনলে আপনি আজ থেকেই রসুন খাওয়া শুরু করে দিবেন। কারণ আমরা সবাই চাই জীবনকে উপভোগ করতে।

আর যদি আপনারা জীবনকে উপভোগ করতে চান, তাহলে অবশ্যই বলব আপনি নিয়ম করে রসুন খাবেন। তো চলুন দেখা যাক কিভাবে শক্তি  বাড়ানোর ক্ষেত্রে রসুন কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে।

শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বৃদ্ধির করতে রসুনের ব্যবহার

আমরা কমবেশি সবাই জানি শরীরে যদি এই উপাদানটি(TESTOSTERONE) বেশি থাকে তবে  শরীরের হরমোন গুলো জীবনি শক্তির ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্ব ভুমিকা পালন করে। অনেক সময়  যাদের বয়স বেশি বা অত্যাধিক কাজ করার  কারনে শরীরের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা  দিন দিন কমে যায় তারা শরীর দূর্বল হয়ে যেতে পারেন।

আর তাই আপনি যদি নিয়মিত রসুন খান তাহলে আপনার  শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বাড়ানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে যা আপনার শক্তি বাড়িয়ে তুলবে কারণ এতে রয়েছে বিভিন্ন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (ANTIOXIDANT) উপাদান ।

 শুক্রাণু বৃদ্ধি করতে রসুনের ব্যবহার

আপনি জেনে অবাক হবে রসুনে থাকে  অ্যালিসিন যা শরীরের রক্ত প্রবাহকে বৃদ্ধি করে যার করনে পুরুষের শরীরে শক্তি বৃদ্ধি পায় এতে করে তাদের জীবনি ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

  নারীর সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে রসুনের ব্যবহার

নারীদের জীবনি শক্তি  বৃদ্ধিতে ইস্ট্রোজেন নামের এক ধরনের হরমোনের ভূমিকা অত্যাধিক। আর রসুনে রয়েছে এই ইস্ট্রোজেন আর তাই নিয়ম করে যদি কোন নারী রসুন খায় তাহলে তাদের শরীরে ইস্ট্রোজেন বৃদ্ধি পাবে এতে করে তারা আরো আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে।

 রসুন খেলে পুরুষদের শক্তি বৃদ্ধি পায়

এর বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন ও পুষ্টি গুনাগুন পুরুষের শক্তি বাড়াতে সহায্য করে । যেমন আপনি যদি ১০০ গ্রাম রসুন খান

তাহলে এ থেকে আপনি ৬২৩ কিলো ক্যালরি শক্তি পাবেন।  এ ছাড়াও কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেম এর জন্য রসুন থাকা পুষ্টি

গুনাগুন অত্যন্ত দরকারি।

দেহের উৎপাদন ক্ষমতা ‍বৃদ্ধির জন্য রসুনের ব্যবহার

অনেক সময় দেহে শুক্রাণুর পরিমান কমে যায় বা কম থাকে আর তাই রসুন যেহেতু দেহের রক্তপ্রবাহ বৃদ্ধি এর

অ্যালিসিনের কারণে তাই দেহে শুক্রাণুর পরিমান বেড়ে যায় । এতে করে বাচ্চা উৎপাদনে সহায়ক ও জীবনি শক্তি বৃদ্ধি পায়।

(কৃষি বিষয়ক আপডেট ভিডিও দেখতে চাইলে আমাদের এই চ্যানেলটি দেখতে পারেন। যে খানে আপনি বিভিন্ন ধরনের ভিডিও দেখতে পারবেন।)

রসুন খাওয়ার নিয়ম

যেহেতু রসুন একটি মসলা জাতীয় দ্রব্য, তাই আমরা এটাকে বিভিন্নভাবে খাইতে পারি। রসুন আমরা কাঁচা খেতে পারি, আবার রান্না করেও খেতে পারি। অনেক সময় আবার রসুনের আচার বানিয়ে অনেকে খেয়ে থাকে। তাই কোন উপায় রসুন খেলে আপনার জীবনের এর জন্য বেশি কর্যকরি হবে তা নিচে বলা হলো।

  • সকাল বেলায় কাঁচা এক কোয়া রসুন নিয়ে খেয়ে ফেলতে পারেন।
  • যদি কাঁচা রসুন না খেতে পারেন তাহলে এর সাথে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন।
  • রসুনের ভর্তা খেতে পারেন।
  • এর আচার বানিয়ে খেতে পারেন।
  • রসুনের পেষ্ট বানিয়ে খেতে পারেন।
  • সকাল বেলায় খালি পেটে আখের গুড় দিয়ে খেতে পারেন।

রসুন খাওয়ার অপকারিতা

এটা খেলে শুধু উপকারী হয় না এ রয়েছে বেশকিছু অপকারিতাও। যেহেতু উপকারেরই বেশি তাই আমরা এর অপকারিতা জেনে নেয়া আমাদের খুবই প্রয়োন। কারণ এজাতীয় সমস্য যদি আমাদের থাকে তাহলে এটা খাওয়া থেকে আমাদের বিরত থাকতে হবে ।

পরবর্তীতে এই সমস্যার সমাধান হলে আপনি খেতে পারবেন। রসুন খেলে যে সকল সমস্যা হতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করা হলো।

  • রসুন খেলে যকৃতের বিষক্রিয়া তৈরি হতে পারে কারণ এতে রয়েছে অ্যালাসিন তাই কেউ যদি অধিক পরিমাণ রসুন খায় তাহলে সে বিষক্রিয়ার মত সমস্যায় ভূগতে পারে।
  • এর মধ্যে রয়েছে সালফার যা অধিক পরিমাণে খালি পেটে খেলে ডায়রিয়া হতে পারে। কারণ সালফার ডায়রিয়া হওয়ার জন্য দায়ি।
  • যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউট এর এক গবেষণায় দেখা গেছে যে যারা খালি পেটে রসুন খায় তাদের বুক জ্বালাপোড়া ও বমি বমি ভাব হতে দেখা যায়।
  • রসুন খেলে মুখে দুর্গন্ধ আসে। কারণ এর মধ্যে রয়েছে সালফার। যেটা মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে থাকে।
  • যেহেতু এটা রক্তের ঘনত্ব কমায় তাই  যদি কোন ধরনের অপারেশন বা কেটে যায় অধিক রক্তপাত ঘটিয়ে থাকে।
  • প্রসব বেদনা বাড়াতে রসুনের জুড়ি নেই । তাই যাদের বাচ্চা প্রসবের সময় হয়ে আসছে তাদের রসুন খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।
  •  রসুন বেশি খাইলে রক্ত চাঁপ কমে যায় আর তার করণে মাথা ঘোরাতে পারে।

শেষকথা:

প্রাকৃতিক ভেষজ হচ্ছে রসুন। রসুন খান নিজের দেহ অখুন্ন রাখুন। আরো বেশি দিন জীবনকে উপভোগ করুন। এ

প্রত্যাশায় রেখে আজকের মত বিদায় নিচ্ছি। রসুনের উপকারিতা লেখাটি পড়ে যদি আপনি উপকার পেয়ে থাকেন,

তাহলে অবশ্যই আপনাকে অনুরোধ করছি আপনি আপনার বন্ধু বান্ধবের মাঝে ছড়িয়ে দিন এই লেখাটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে । আপনার মূল্যবান মতামত পেশ করুন আমাদের কমেন্ট এর জায়গায়। পরবর্তীতে আপনাদের মতামতের উত্তর দিব ইনশাল্লাহ।

আরো পড়ুন-

. বিষন্নতা নিয়ে উক্তি

২.সুন্দর কথা বলার কৌশল।

৩.. গুগলের জানা অজানা নানান তথ্য

৪. স্কুল লাইভ নিয়ে স্ট্যাটাস

৫. গুগলে মানুষ কোন বিষয়ে বেশি সার্চ করে।

3 thoughts on “রসুনের উপকারিতা রসুন খাওয়ার নিয়ম ও কখন রসুন খেতে হয়”

  1. Pingback: যোনিতে চুলকানি হলে করনীয়

  2. Pingback: ভালোবাসার পিকচার মেসেজ

  3. Pingback: বন্ধু নিয়ে স্ট্যাটাস ছবি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Share Buttons and Icons powered by Ultimatelysocial