Uncategorized
Trending

সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি স্কেল ও বেতন

সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি- গরীব মানুষের জন্য ইউরোপ খ্যাত মেডেলিস্ট এর সিঙ্গাপুর অনেকের কাছেই

কাজের জন্য পছন্দের ১ নাম্বার তালিকায় স্থান পায়। এর প্রধান কারণ কম সময়ে অধিক টাকা ইনকামের জন্য সিঙ্গাপুরের

তুলনা হয়না । কিন্তু আমাদের অনেকেরই কাজে দক্ষ্যতা না থাকায় সিঙ্গাপুরে গিয়ে ভালো কাজ পায়না বা অধিক টাকা আয়

করতে পারে না । আর এই জন্য সিঙ্গাপুর সরকার কিছু বিষয়ের উপরে কাজের দক্ষতার জন্য পরীক্ষা সিস্টেম চালু করেছে।

যে পরীক্ষার মাধ্যমে আপনি আপনার কাজের দক্ষতার পরিচয় দিয়ে, সেই দেশে যেতে হয়। তবে আজকে আমি লেখার

মাধ্যমে আপনাদের জানিয়ে দিব, আপনি যদি সিঙ্গাপুরে থাকেন, অথবা সিঙ্গাপুরে যেতে চান বা কাউকে সিঙ্গাপুর পাঠাতে

চান তবে কোন কাজগুলো সবচেয়ে বেশি সিঙ্গাপুরে প্রচলিত। আর কিভাবে অল্প সময়ে অধিক টাকা ইনকাম করা যায় সেই

বিষয়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। নিচে সেই সকল বিষয়গুলো উল্লেখ করব, যে সকল কাজ আপনি শিখলে খুব

সহজেই সিঙ্গাপুরের মতো সুন্দর দেশটিতে যেতে পারবেন, এবং সেখানে ভালো মানের আয় রোজগার করতে পারবেন। এর

জন্য প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি লেখা টি পড়তে থাকুন।

সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি

সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি
সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি

অনেকেই প্রশ্ন করে থাকেন, আমি সিংগাপুর যাব কিন্তু কোন কাজে যাব ? কোন কাজ শিখলে আমার বেশি বেতন হবে?

তাদের উদ্দেশ্যে করেই  এখানে বলা। একটা কথা খেয়াল রাখবেন যে কাজে লোকের প্রয়োজন বেশি অবশ্যই সেই কাজে

বেতন বেশি। তাই আপনাকে মাথায় রাখতে হবে সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি, অর্থাৎ কোন কাজে তারা লোক বেশি

নিয়োগ দিয়ে থাকে। তাহলে দেখা যাবে আপনি যদি সেই কাজে নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তোলেন তবে খুব সহজেই

সিঙ্গাপুরে যাওয়ার জন্য যে আইপি পাবেন। সেই কাজগুলো হচ্ছে নিম্নোক্ত কাজগুলো, যা আপনার পছন্দমত, এবং আপনি

যে কাজটি করতে পছন্দ সেই কাজটি বেছে নিন। আপনার নিম্নোক্ত যেকোনো একটি বা একাধিক কাজের উপরে নিজের

দক্ষতা অর্জন করতে পারেন। অবশ্য একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন, যে কাজটি আপনি শিখবেন, যে কাজে যেতে চান সেই

কাজে যেন আপনি একজন দক্ষ হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন। তবেই আপনি আপনার আশা অনুরূপ আয়

রোজগার করতে পারবেন।

  1. কনস্ট্রাকশন কাজের ভিসা।
  2. শিপ ইয়ার্ডের কাজ।
  3. ক্লিনারের কাজ।
  4. পাইপ ফিডিং এর কাজ।
  5. প্লানটেশনের কাজ।
  6. বিক্রয় প্রতিনিধির ভিসা।
  7. ফার্নিচারের কাজ।
  8. প্লাম্বারের কাজ।

সিঙ্গাপুর স্কেল

স্কেল হলো সিঙ্গাপুর যার এক ধরনের পরিক্ষা। যদি কেউ খুব সহজে সিঙ্গাপুর যেতে চায় তবে স্কেল পাস করতে হয়। এই

কথাটি কমবেশি সবারই জানা। আর কি কারণে এই স্কেল পাস করতে হয় সেই বিষয়টি হয়তো অনেকেই বিস্তারিত জানেনা।

আর তাই অনেকেই স্কেল করতে চায়না। আর তাই এখানে তাদের উদ্দেশ্যে বলা, আমরা যদি স্কেল সম্পর্কে বিস্তারিত না

জানি তবে আমরা স্কেল করতে যাবো না। কিন্তু আপনি যদি সিঙ্গাপুরে স্কেল পাস করে যান তখন আপনি যে কোন

কোম্পানি আপনাকে খুব সহজে গ্রহণ করবে। কারণ একজন দক্ষ লোক ওই দেশের যখন কোন কোম্পানিতে কাজ করে,

তখন ওই দেশের সরকারকে খুব সামান্য পরিমান ট্যাক্স প্রদান করতে হয়। যার কারণে একটি কোম্পানি খুব সহজেই তাকে

কাজে নেওয়ার ব্যাপারে সরকারের কাছ থেকে অনুমোদন পেয়ে থাকেন। এতে করে কোম্পানি লাভবান হয়, এবং এদেশের

সরকার স্কেল করার কারণে মনে করে থাকে এই লোকটি হচ্ছে কাজে দক্ষ। তাই তাকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে থাকে, শুধু তাই

নয় এক্ষেত্রে একজন দক্ষ লোক বিদেশ যেতে চায় তবে তার খরচ খুবই সামান্য হয় । আর যদি একজন অ-দক্ষ লোক

বিদেশ যেতে চায় তবে তার খরচ বেশি হয়ে যায়। এ কারণে আমরা যারা বিদেশ যেতে চাই অবশ্যই পরীক্ষা দিয়ে পাস করে

তারপরে যাওয়ায় হচ্ছে আমাদের জন্য উত্তম । এতে করে আপনি দীর্ঘদিন বিদেশ থাকতে পারবেন, এবং অনেক টাকা

ইনকাম করতে পারবেন।

সিঙ্গাপুরে সর্বনিম্ন বেতন কত? বা সিঙ্গাপুরে শ্রমিকের বেতন

প্রতিটা দেশের ঐ শ্রমো আইন অনুযায়ী তাদের দেশের শ্রমিকদের জন্য একটি বেতন কাঠামো নির্ধারণ করা থাকে। কোন

কোম্পানি বা ব্যক্তি ইচ্ছে করলেও সেই বেতন কাঠামোর নিচে তার শ্রমিকের বেতন প্রদান করতে পারবেন না। তাই

অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগে সিঙ্গাপুরের সর্বনিম্ন বেতন কত? এখানে আমি সর্বোচ্চ বেতনের কথা আলোচনা করব না, কারণ

সর্বোচ্চ বেতন অনেকের অনেক হয়ে থাকে । সাধারণত তার যোগ্যতা অনুযায়ী, কিন্তু আপনি যদি একজন নতুন শ্রমিক

হিসেবে সিঙ্গাপুরে প্রবেশ করেন তাহলে আপনার বেতন কত হবে? এই প্রশ্নের উত্তর আমি বলবো যদি আপনি সিঙ্গাপুরে

একজন শ্রমিক হিসেবে প্রবেশ করতে চান, তবে কাজের ধরণ ভেদে প্রতিদিন ১৮  থেকে ২৫ (সিঙ্গাপুরী) ডলার বেতন

পাবেন। এর বাইরে যদি আপনি ওভার টাইম করেন সেটা কম্পানি ভেদে আলাদা হয়ে থাকে কারণ অনেক কম্পানি মূল

বেতনের ১.৫ গুন আবার কেউ ডাবল দিয়ে থাকে।

সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি এর শেষ কথা

অনেক চমৎকার সিঙ্গাপুরে কোন কাজের চাহিদা বেশি লেখাটির আশা করি অনেকের কাজে লাগবে । আর কোন

কারণে আপনার যাদি কাজ নাও লাগে, তবে অবশ্যই আপনার বন্ধু বান্ধব যারা বিদেশ যেতে চান তাদের অবশ্যই কাজে

লাগবে। যদি লেখাটি ভাল লাগে, এবং লেখাতেই মনে হয় কারো উপকারে আসবে তবে শেয়ার করে রাখতে পারেন, আপনার

বন্ধুদের সাথে এতে করে তারা এই লেখা দ্বারা উপকৃত হতে পারে। আমাদের সাইটে আরো অনেক ধরণের লেখা আছে যে

লেখাগুলো আপনার ভাললাগতে পারে । লেখাটি ভালো লাগুক আর না লাগুক অবশ্য আমাদের জানাবেন, আপনার

অনুভূতি আমাদের কাছে মহামূল্যবান । তাই আমাদের সাথে থাকুন, প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে কোন কাজের

চাহিদা বেশি লেখাটা পড়ার জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

একই জাতীয় আরো লেখা :

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *