Uncategorized
Trending

কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি বেতন কত ও যাওয়ার উপায়

কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি – ইউরোপের যতগুলো দেশ আছে তারমধ্যে কানাডা হচ্ছে সবার পছন্দের দেশ।

যদি কেউ উন্নত জীবন যাপনের করার জন্য চায় তবে তবে সবচেয়ে সুন্দর দেশ হলো কানাডা। আর এই কারনেই সবার

পছন্দের শীর্ষে থাকে এই দেশ। সবাই কানাডায় স্থায়ী বসবাসের জন্য ইচ্ছে পোষণ করে থাকে। কিন্তু কানাডা যাওয়ার উপায়

অনেকটাই কঠিন বিদায় অনেকেরই এই অশা অধরাই থেকে যায়। কিন্তু একটু সচেতন হলে খুব সহজেই এই দেশে প্রবেশ

করা যায়। আর কিভাবে আপনি খুব সহজে এই দেশে প্রবেশ করতে পারবেন, এবং কোন কোন কাজে এদেশে যাওয়ার জন্য

সহজ, এছাড়াও যারা এই দেশে বর্তমানে আছেন কোন কাজগুলো শিখলে আপনি বেশি বেতন পাবেন। সকল বিষয়ে

বিস্তারিত ধারণা দিব। আমাদের এই লেখার মাধ্যমে। এর জন্য শেষ পর্যন্ত কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি  পড়তে

থাকুন তাহলে আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন আশা করি ইনশাআল্লাহ।

কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি

কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি ছবি
কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি ছবি

যারা স্বপ্নেরিএই দেশটিতে বিশেষ করে যেতে আগ্রহী, বা বর্তমানে অবস্থান করছেন  কিন্তু কোন কাজে এই দেশে প্রতি বছর

প্রচুর লোক নিয়োগ করে থাকে তা আপনি জানেন না। আজ এখানে বিস্তারিত আলোচনা করবো যে সকল কাজে কানাডা

লোক নিয়োগ দিয়ে থাকে বেশি পরিমাণে, অর্থাৎ আপনি কানাডায় খুব সহজেই কিভাবে চাকরি পাওয়ার জন্য চেষ্টা করছেন

তাদের জন্যে মূলত আমার এই লেখা। আপনি কানাডার বাহিরে কিংবা কানাডার ভিতরে থাকেন আপনি যদি এই লেখাটি

পরেন তবে জানতে পারবেন কোন কোন কাজে কানাডা সবচেয়ে বেশি চাকরির বিজ্ঞপ্তি দিয়ে থাকে , এবং বিদেশ থেকে

লোক নিয়োগ করে থাকে। আর এই সকল কাজের চাহিদাও এই দেশে বেশি যার কারণে যে কেউ খুব সহজেই এ ধরনের

কাজে চাকরি পেয়ে থাকেন।

রেজিস্টার্ড নার্স এবং ডাক্তার কানাডায় নিয়োগ

কোভিট-১৯ এর পরবর্তী সময়ে এ দেশটিতে নার্স এবং রেজিস্টার ডাক্তারদের চাহিদা বেড়ে গেছে অনেকগুণ বেশী । তাই

যারা এই পেশায় দক্ষ, এবং যাদের কানাডায় চাকরি করার মন মানসিকতা আছে তারা খুব সহজেই এ দেশটিতে কাজ করতে

পারবেন। আর এর জন্য যে কাজটি করতে হবে, তা হলো নিম্নোক্ত দেওয়া ওয়েবসাইটে আপনি আপনার যোগ্যতা অনুসারে

চাকরির জন্য আবেদন করতে পারেন। আর সেক্ষেত্রে আপনার সুবিধার জন্য নিম্নোক্ত এই চাকুরীর এন.ও সি কোড ও

বেতন কাঠামো তুলে ধরা হলো।

বেতন হবে -৭৭০০০ কানাডিয়ান ডলার । আর এই চাকরীর এন.ওসি কোড -৩০১২

হেভি ট্রাক ড্রাইভার কানাডায় নিয়োগ

যাদের এই কাজের দক্ষতা আছে তাদের জন্য এই কাজের উপর ভিসা পাওয়াটা অনেক সহজ ব্যাপার। তাই আপনার যদি

এই ধরনের কাজের উপর দক্ষতা থাকে তবে আপনিও আসতে পারেন এই দেশটিতে। আর এর জন্য আপনাকে যে সকল

যোগ্যতা থাকতে হবে তাহলো এই কাজের যোগ্যতার সার্টিফিকেট। ইংরেজী ভাষা দক্ষতার সার্টিফিকেট( আই.ইল.টিিএস)

আপনি যদি এই কাজের উপর এ দেশে আসতে পারেন তবে আপনার বাৎসরিক গড় বেতন হবে ৪৫ হাজার কানাডিয়ান

ডলার। আর এই চাকরির এন.ও.সি কোড -৭৫১১. ৭৫২১ ও ৭৪৫২।

জেন্ডার লেভার 

এই পেশাটি মূলত ভারি কোন ভার বহন করা বা মালামাল সরানোর কাজ করা । এই ধরনের কাজের জন্য অনেক লোকের

চাহিদা রয়েছে এই দেশটিতে। তাই আপনি যদি শারীরিক ভাবে ভারি কাজ করতে সক্ষম হন তবে এই কাজের জন্য আপনিও

নিজেকে নিয়োগ করতে পারেন। আর এই কাজের জন্য যে বেতন প্রদান করা হবে তাহলো প্রতি বছর ৪৭০০০ হাজার

কানাডর ডলার । আর এই চাকুরির এন.ও.সি কোড টি হলো-৭৬১১।

অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যাসিস্ট্যান্ট জব ইন কানাডা

অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে প্রচুর লোকবল নিয়োগ করে থাকে কানাডিয়ান গভারমেন্ট। এটি মূলত অফিস

সহকারী কাজ করানো হয়। যাদের এই কাজের ওপরে দক্ষতা অভিজ্ঞতা রয়েছে তারা খুব সহজেই এই কাজের জন্য

আসতে পারেন। তবে এই কাজটি অনেক সুন্দর, এবং অফিশিয়ালি হওয়াতে খুব সহজেই করতে পারে যে কেউ। এই কাজে

আসতে যে বিষয় গুলো জানতে হবে আপনাদের তা হলো শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রয়োজন হবে এর সাথে  ইংরেজি ভাষার উপর

যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে, পূর্বের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এই কাজের জন্য আপনাকে প্রতি বছর গড়ে ৪৬০০০

ডলার। আর এর কোড-১২৪১।

সেলস এসোসিয়েট হিসেবে কানাডায় নিয়োগ

এই চাকরিটি মূলত সেলস বৃদ্ধির লক্ষ্যে অফিশিয়ালি বা মার্কেটে গিয়ে করতে হয়। এই কাজের জন্য কানাডায় অনেক

লোক নিয়োগ করা হয়ে থাকে। তাই যদি কারো এই কাজের উপরে অভিজ্ঞতা থাকে তবে তার জন্য এই চাকরিতে অনেক

পার্ফেক্ট হবে। আর চাকরির জন্য যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র লাগবে তা আপনি নিম্নোক্ত ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখে

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করে খুব সহজেই এই দেশে আসতে পারবেন । আরি এই চাকরির গড় বেতন -৫২০০০

কানাডার ডলার। কোড নং-৬৪১১।

একাউন্টেন্ট হিসেবে কানাডায় চাকরি

অনেক গুলো চাকুরীর মধ্যে এই চাকরি অনেক লোভনীয়। কারণ অনেক আরামের সাথে করা যায় এই চকরিটি। তাই

অনেকেই এই কাজের জন্য আসতে চায় এই দেশে। এই চাকরিটি মূলত একাউন্টেন্টে বা এর সহায়ক হিসেবে কাজ করতে

হয়। এ চাকরির বার্ষিক গড় বেতন ৬০০০০ ডলার। আর এর কোড হলো-০১১১১ ও ১১১১১।

প্রজেক্ট ম্যানেজারে কানাডায় চকরি

একটি প্রকল্পকে বাস্তবায়ন করতে নিয়োগ করা হয়ে থাকে। এই জব গুলো মূলত  এক্সপেরিয়েন্স দের জন্য । আর এর জন্য

বেতন অনেক বেশি হয়ে থাকে। এই কাজের জন্য বাৎসরিক ৬০০০০ হাজার কানাডিয়ান ডলার দিয়ে থাকে। তবে বলে রাখা

ভাল এই জাতীয় কাজের উপরে ন্যূনতম তিন থেকে চার বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হয়। তবে কাজের ভিন্নতার উপর প্রকল্প

ব্যবস্থাপকেরও অনেক ভিন্নতা থাকে। যেমন  উদাহরণস্বরূপ বলা যায়  বিজনেস ম্যানেজমেন্ট এর এর একরকম প্রকল্প

ব্যবস্থাপক। আবার কেউ যদি ইঞ্জিনিয়ারিং লেখাপড়া করে থাকে তার প্রকল্প আরেকরকম হবে। এ এন.ও.সি কোড

হলো-০২১১, ০২১৩,০৭১১ ও ১২২১।

ওয়েল্ডার এর জব

অনেক হার্ট হওয়ার কারণে অনেকেই এই কাজের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করে না। যার কারণে এ কাজের জন্য অধিক লোক

বাহিরের দেশ থেকে নিয়োগ করে থাকে। যার ফলে যাদের এই কাজের উপর দক্ষতা আছে তারা খুব সহজেই এই কাজের

জন্য আসতে পারেন। আর এই কাজের বেতন হবে প্রতি বছর-৭৩০০০ ডলাল। এর কোড হলো-৭৩২৭।

ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং জব ইন কানাডা

যাদের অনেক বেশি পরিমাণে টাকা রোজগার করার ইচ্ছা তাদের জন্য এই পেশাটি অনেক বেশি পছন্দের হবে। কারণি এই

কাজের জন্য অনেক বেশি পরিমাণে বেতন প্রদান করা হয়ে থাকে।  এই পেশার ওপরে দক্ষতা ও  ডিপ্লোমা ডিগ্রি থাকতে

হবে। এই কাজের জন্য  প্রতিবছর গর বেতন হলো- ৯১০০০কানাডিয়ান ডলার বেতন দিয়ে থাকে। আর এই চাকরির কোড

হল-২১৩৩।

সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরি ইন কানাডা

আপনি যতি একজন দক্ষ সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হন তবে এই চাকরিটি আপনার জন্য। এই দেশের চকরি নীতিমালা

অনুযায়ী এদেরকে অধিক বেতন প্রদান করে থাকে। তাই একজন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার গড় বাৎসরিক বেতন পাবেন ১

লক্ষ্য কানাডিয়ান ডলার । আর এর কোড হলো-২১৭৩।

কানাডায় চাকরির বেতন বা কানাডায় সর্বনিম্ন বেতন কত

অনেকের মনে আগ্রহ থাকে আমি যদি কানাডায় যাই বা যারা বর্তমানে  এই দেশটিতে আছেন তাদের কাজের বেতন কত

হবে? অথবা একজন লোকের কানাডায় সর্বপ্রথম কত বেতন হয় । সেখানে গেলে কি পরিমাণ আয় রোজগার করা যাবে?

এই বিষয়টা নিয়ে অনেকেই আমাদের কাছে জানতে চেয়েছেন। তাদের কথার উত্তরে বলতেছি আপনি যদি কানাডায় নতুন

গিয়ে থাকেন, তাহলে আপনি এখানে যে বেতন পাবেন তা হচ্ছে প্রতি ঘন্টা ১৬ থেকে ২০ ডলার এর মধ্যে। কারণ এই

দেশের সরকারের একটি আইন আছে, আপনাকে কোনোভাবেই তারা বেতন ইচ্ছে মত দিতে পারবে না। তবে আপনার

যোগ্যতা, এবং কাজের অভিজ্ঞতা অনুসারে এই বেতন আরো বাড়তে পারে। এইজন্য বাড়তি বেতন এর কোনো সীমা নেই,

কিন্তু সর্বনিম্ন বেতন হচ্ছে উক্ত পরিমাণ। ১৫ ডলার ঘন্টার  কমে আপনাকে কোনভাবে কোন কোম্পানি, বা কোন ব্যক্তি

বেতন প্রদান করতে পারবেনা

সরকারিভাবে কানাডায় যাওয়ার উপায়

সরকারিভাবে কানাডায় যাওয়া হচ্ছে সবচেয়ে সহজ উপায়। কিন্তু আমরা অনেকেই এ বিষয়টি না জানার কারণে সে দেশে

যেতে পারিনা। বিশেষ করে বাংলাদেশ ও ভারত সহ বেশ কয়েকটি দেশের লোক এ বিষয়ে খুবই কম জানি। যার ফলে

আমরা সঠিক উপায়ে যেতে পারি না । তাই এখানে কিভাবে আপনি সরকারিভাবে কানাডায় যেতে পারবেন সে বিষয়ে

বিস্তারিত আলোচনা করবো। একই সাথে কানাডার সরকারি ওয়েবসাইট, অর্থাৎ যে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি খুব

সহজেই এই দেশটিতে কাজের জন্য বা অন্যকোন প্রয়োজনে যেতে পারবেন তার ঠিকানাটি নিচে দিয়ে দিব। আপনি শুধু

এই ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন করে নিজেই নিজের আবেদন করতে পারবেন । তবে আপনাদের কাছে একটি অনুরোধ

রইল যদি সে ক্ষেত্রে আপনারা কোন সমস্যায় পড়েন তবে আমাদের কমেন্ট সেকশনে লিখতে পারেন। আমরা পরবর্তীতে

আপনাকে কিভাবে প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত আপনি আবেদন করবেন, এবং আপনার আবেদন কিভাবে করতে হবে? কি কি

উল্লেখ করবে? সে বিষয়ে পরিপূর্ণ ধারণা দিব।

আপনি যদি সরকারিভাবে  কানাডায় যেতে চান তাহলে আমাদের দেয়া এই লিংক অনুসরণ করুন( লিংক পেতে)

কানাডায় লোক নিয়োগ ২০২৩

২০১৯ এর শেষের দিক থেকে শুরু করে ২০২১ সালের শেষ পর্যন্ত কোভিট-১৯ এর কারণে কানাডায় লোক নেয়া অনেকটা

সীমিত পরিসরে ছিল । কিন্তু বর্তমানে বহু সংখ্যক লোক কানাডার সরকার নিয়োগ দিচ্ছে। কিন্তু আমরা এই দেশে যাওয়ার

প্রক্রিয়া না জনার কারণে আমরা এই সুবিধাটি পাচ্ছিনা। আর এর ধারাবাহিকতায় যে সকল কোটায় কানাডা লোক নিয়ে

থাকে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো স্টুডেন্ট প্রোগ্রাম, নরর্দান ,পিএনপি,সাউদার্ণ, ইত্যাদি এছাড়াও আরো বেশ কয়েকটি

প্রোগ্রাম রয়েছে যার মধ্যে এগ্রিকালচার অন্যতম যেখানে কানাডা প্রতিবছর অনেক লোক নিয়োগ করে থাকে। তাই যারা এই

কাজে যেতে ইচ্ছুক তারা যেতে পারবেন। তবে তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, আপনারা যদি একান্তভাবেই কানাডা যেতে চান

তাহলে ২০২৩ সাল হবে আপনার জন্য সুবর্ণ সুযোগ। আপনি খুব সহজেই ২০২৩ সালে কানাডা যেতে পারবেন। তবে

এক্ষেত্রে বলে রাখা ভাল, আপনাদের অবশ্যই আইএলটিএস পরীক্ষায় ভাল স্কোর থাকতে হবে। তবে আপনার জন্য সে দেশে

যাওয়া সহজ হয়ে যাবে । তাই আর দেরি না করে নিচের দেওয়া লিংকে তথ্য অনুসারে আপনি পরিপূর্ণ নিজেকে যোগ্য করে

গড়ে তুলুন, এবং তাদের দেয়া নির্দেশ অনুসারে আপনার ডকুমেন্ট রেডি করুন। যাতে করে আপনি ২০২৩ সালের মধ্যে

কানাডায় যেতে পারেন।

   কানাডায় যে কোন ধরনের চাকরি বা অন্যান্য ভিসার জন্য আমাদের দেয়া এই সাইটি ভিজিট করুন( এখানে ক্লিক করুন)

কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি এর শেষ কথা

আমার মনে হয় উপরোক্ত কানাডায় কোন কাজের চাহিদা বেশি  লিখাটি আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। আশা করি

এই লেখাটি আপনাদের কাজে লাগবে, এ প্রত্যাশা নিয়ে লেখা আজকের মত শেষ করছি। আমাদের সাইটে আরো অনেক

সুন্দর সুন্দর লেখা আছে একই বিষয়ে, আশাকরি লেখাগুলো আপনাদের অনেক কাজে লাগবে। তাই আমাদের সাথে থাকুন,

এবং অনুগ্রহ করে আপনার মূল্যবান মতামত ও কমেন্টে লিখুন। কারন আপনাদের মূল্যবান মতামত আমাদের কাছে

মহামূল্যবান। ধন্যবাদ প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত লেখা টি পড়ার জন্য।

একই জাতীয় আরো লেখা :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *