Community Bank Bangladesh Ltd ম্যানেজার নিয়োগ।

বর্তমানে যে হারে প্রতিবছর শিক্ষিত যুবক বের হয়ে আসছে, সে তুলনায় তৈরি হচ্ছে না চাকরির বাজার। আর তাই প্রতিবছর নতুন করে যোগ হচ্ছে বেকার যুবক যুবতীর সংখ্যা। আর এই সংখ্যা হ্রাস কল্পে বেসরকারি ব্যাংক সমূহের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ । এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ কমিউনিটি হচ্ছে অন্যতম। এই ব্যাংকের অধীনে প্রতিবছরই কমবেশি লোক নিয়োগ করা হয়ে থাকে।

আর তাই আপনারা যারা এই ব্যাংকে চাকরি করার জন্য আগ্রহী, তাদের জন্যই মূলত আমারে আয়োজন । এই ব্যাংকটি বর্তমানে তাদের লোকবল নেওয়ার জন্য চাকরির বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে। যা আমি নিম্নোক্ত বিজ্ঞাপনটি বিস্তারিত তুলে ধরা হলো। যদি আপনার সাথে আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং পূর্ব চাকরির অভিজ্ঞতা সবগুলো মিলে যায় তাহলে আপনি আমাদের এই বিজ্ঞাপন দেখে আবেদন করতে পারেন।

কমিউনিটি ব্যাংকে চাকুরি

ব্যাংকের চাকরি মানে লোভনীয় চাকরি। বিশেষ করে যারা মহিলা তাদের জন্য এই চাকরিটি খুবই উপযুক্ত। কারণ ব্যাংকে চাকরি করলে আপনি ডেস্কে বসে চাকরি করতে পারবেন। যেখানে আপনার কোন ধরনের বাহিরের চাপ থাকে না, এবং চাকরি হারানোর ভয় থাকে না। আপনি একটু ইচ্ছে করলেই নিজের উপজেলায় এই চাকরি করতে পারেন।

তাই কমিউনিটি ব্যাংকের যে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে, সেখানে আবেদন করে আপনি আপনার যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে চাকরিটি নিয়ে নিতে পারেন।

 

                                        ম্যানেজার -অপারেশন পদে লোকবল নিয়োগ

Community Bank Bangladesh Ltd ম্যানেজার নিয়োগ : প্রিয় পাঠক গন আপনাদের অবগতীর জন্য যানানো যাচ্ছে যে কমিউনিটি ব্যাংক লিমিটেড কিছু সংখ্যক ম্যানেজার অপারেশন পদে নিয়োগ প্রদান করবেন। তাই আর দেরী না করে আজই আপনার দরখাস্থ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য অনুরোধ করছি। আসুন আমরা নিয়োগ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

 

চাকুরীর দায়দায়িত্ব(Community Bank Bangladesh Ltd ম্যানেজার নিয়োগ):

১, সকল অফিস কর্মচারীর মাসিক বেতন প্রদান করা ।

২. অফিসের বিভিন্ন প্রকার খরচের হিসাব সংরক্ষণ এবং এইচ. আর প্রধানকে বিভিন্ন প্রকার সুযোগ সুবিধা প্রদানের জন্য সুপারিশ করা এবং বাস্তবায়ন করার জন্য ব্যাস্থা গ্রহণ করা ।

৩. অফিস স্ট্যাফদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা যেমন গাড়ী ঋন , বাড়ীর ঋন, টিএ. ডিএ প্রদা কান, বিভিন্ন আসবাপত্র প্রদান সহ  এইচ. আর প্রধানকে সহোযোগীতা প্রদান করা।

৪. বিভিন্ন কর্মচারীর সুযোগ সুবিধা তথ্য সংগ্রহ করা এবং তা প্রয়োজন অনুসারে সুবিধাভোগীদের তথ্য প্রদান করা।

৫. সকল অফিস কর্মীদের আয়করের হিসাব রাখা এবং মাসিক বেতন থেকে উৎস কর কেটে রাখা।

৬. অফিসের কর্মীদের ভিবিন্ন হিসাবের তথ্য পরিসংখ্যান  আকারে প্রিতিবেদন প্রদান  করা  এবং এইচ . আর প্রধান কে জমা প্রদান করা।

৭. কর্মীদের অবসর গ্রহনের সময় তাদের বিভিন্ন অবসর কালীন বিভিন্ন  সুযোগ সুবিধা প্রদানের ব্যাবস্থা করা।

৮. সকল অফিস কর্মীদের তারেদ কাজের অগ্র গতির মান সময়ে  সময়ে মনিটরিং করা।

৯. ত্রৈ-মাসিক অর্ধ-বাৎসরিক এবং বাৎসরিক প্রতিবেদন তৈরী এবং তা ইচ. আর প্রধানকে প্রদান করা।

১০. কর্মী দের কর্ম দক্ষতা অনুযায়ী তাদের ভাতা ও সুযোগ সুবিধা প্রদান করা।

চাকুরীর ধরনঃ

  • ফুলটাইম।

অন্যান্য যোগ্যতাঃ

১. একই জাতীয় ব্যাংক বা আর্থীক প্রতিষ্ঠানে ৬ বছরের কাজের অভিঙ্গতা।

২. শ্রম আইন ও বাস্তব ভিত্তিক কাজের অভিজ্ঞতা ।

৩. সকলের সাথে মিলেমিসে কাজ করার মন মানসিকতা থাকতে হবে।

৪. বাংলায়  এবং ইংরেজীতে যোগাযোগ করার দক্ষতা থাকতে হবে।

৫.কম্পিউটার এ  অফিসিয়াল কাজের দক্ষতা থাকতে হবে।

চাকুরীর স্থানঃ

  • ঢাকা

বেতন ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধাঃ

  • আলোচনা সাপেক্ষে

আরো সহজ ভাবে দরখাস্ত প্রদানের জন্য নিচে লিঙ্ক প্রদান করা হল।

সহজ ভাবে দরখাস্ত প্রদানের জন্য এখানে ক্লিক করুন।

 সহজে চাকরি পাওয়ার পরামর্শ

আমরা শুধু আবেদন করেই চিন্তা করি এই চাকরিটা হয়তবা আমার হয়ে যাবে।  অথবা আমরা কোন কাজ না করেই সেই কাজ থেকে ফল আশা করি। তাই আপনাদের চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি উপদেশ দেবো । যে উপদেশ গুলো আপনি কাজে লাগিয়ে খুব সহজে চাকরি পেতে পারেন। আর তাহলো আপনি যদি এই চাকরি পেতে চান,

আপনাকে অবশ্যই অনেক মানুষের সাথে কম্পিটিশন করে এই চাকরিটি আপনার ভাগিয়ে নিতে হবে। আর তার জন্য আপনার দরকার পর্যাপ্ত সাধারণ জ্ঞান ও ভালমানের শিক্ষাগত যোগ্যতা । অনেকেরই অনেক শিক্ষাগত যোগ্যতা আছে, কিন্তু তা সত্বেও তারা তাদের আশানুরুপ চাকরি পায় না। এটার মূল কারণ হচ্ছে তাদের সাধারন জ্ঞান ও কাজের দক্ষতা কম।

আর তাই আপনি যখন চাকরির জন্য আবেদন করবেন, সেই চাকুরির বিষয়ে আপনি প্রচুর পড়াশোনা করে জ্ঞান অর্জন করার চেষ্টা করবেন । তাহলে দেখবেন আপনি আপনার কাঙ্খিত চাকরিটি খুব সহজেই পেয়ে গেছেন।

চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে সর্তকতা

অনেকে চাকরি পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠেন। বিশেষ করে যাদের চাকরির বয়স শেষের দিকে। তাদের চিন্তার যেন শেষ নেই। আর তাই তারা চিন্তা করে বিভিন্ন অসদুপায় চাকরি নেওয়ার । আমার এই সর্তকতা মূলত তাদের জন্যই, যারা অসদুপায় চাকরি নেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে । তাদের উদ্দেশ্যে আমার কয়েকটি প্রশ্ন ।

এই প্রশ্নের উত্তর গুলো যদি আপনার জানা থাকে তাহলে আপনি কেবল এই পন্থা গ্রহণ করতে পারেন।অন্যথায় আপনি যদি এই পন্থা গ্রহণ করেন তাহলে আপনার ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা ১০০ ভাগ

  • আপনি যাকে টাকা দিচ্ছেন সে যদি আপনাকে টাকা ফেরত না দেয় তাহলে আপনি কি করতে পারবেন?
  • যাকে আপনি টাকা দিচ্ছেন সে আপনার কেমন পরিচিত? সেকি ঘনিষ্ঠ কেউ নাকি দূরের কোনো আত্মীয়ের পরিচিত?
  • আপনাকে যে সে চাকরি দিবে এর জন্য সে আপনাকে কতটুকু গ্যারান্টি দিয়েছে? বা কিভাবে গ্যারান্টি দিয়েছে।
  • টাকা কি চাকরি দেওয়ার আগেই নিবে? নাকি চাকরি দেওয়ার পরে নেবে? যদি চাকরি দেওয়ার পরে টাকা নেয় তাহলে এ ব্যাপারে আমার কোন কথা নেই।
  • যে আপনাকে চাকরি দিবে সে মূলত ওই অফিসের কোন পদে কর্মরত আছে?

এই সমস্ত বিষয়ের উত্তর যদি পজিটিভ হয় তাহলে আপনি অন্যায় পথ অবলম্বন করতে পারেন তো আমি আপনাদেরকে বলবো কোন অন্যায় পথে ভালো নয় আপনি আপনার যোগ্যতার মাধ্যমে চাকরি অর্জন করুন এটি হচ্ছে সবচেয়ে ভালো পন্থা।

শেষকথা:

আপনি যদি চাকরির বিজ্ঞপ্তি টি পড়ে থাকেন, এবং সকল চাকরিদাতার সকল রিকোয়ারমেন্ট যদি আপনার সাথে মিলে থাকে। তাহলে আমি আপনাকে বলব আর বসে না থেকে আপনি উক্ত চাকরির জন্য আবেদন করে ফেলুন। আপনি যদি এই আবেদন দ্বারা চাকরি পান তাহলে অবশ্যই আমাকে কমেন্ট করে জানাবেন।

আমার এই লেখা যদি আপনার উপকার হয়ে থাকে তাহলে পরবর্তী লেখার জন্য আবেদন করবেন। আপনাদের চাহিদা অনুযায়ী আমি আপনাদের বিভিন্ন লেখা প্রদান করব । ধন্যবাদ আপনাকে কষ্ট করে লেখা টি পড়ার জন্য।

 

১. প্র্যাক্টিক্যাল একশনে চাকুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.